1. raselahamed29@gmail.com : admin :
  2. uddinjalal030@gmail.com : jalaluddin :
  3. dailyazadirkantho24@gmail.com : kantho24 :
  4. puloks25@gmail.com : puloks :
  5. rakibkst1996@gmail.com : rakibkst1996 :
  6. news.thekushtiareport24com@gmail.com : shomoyerbangla24 :
ইসলামপুরে স্বেচ্ছা শ্রমের মাধ্যমে বাধঁ ও রাস্তা নির্মাণ কাজের উদ্বোধন - Online TV
মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ০৭:৩৪ পূর্বাহ্ন

ইসলামপুরে স্বেচ্ছা শ্রমের মাধ্যমে বাধঁ ও রাস্তা নির্মাণ কাজের উদ্বোধন

এস.এম হোসেন রানা
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১২ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ৫৩ বার নিউজটি পড়া হয়েছে

জামালপুর প্রতিনিধিঃ জামালপুর জেলার ইসলামপুর উপজেলার ৪নং সাপধরী ইউনিয়নের যমুনার দূর্গম চরের ইন্দুল্লামারী এলাকাবাসীকে রক্ষায় স্বেচ্ছা শ্রমের মাধ্যমে বাঁধ ও রাস্তা নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করা হয়েছে। ওই এলাকাবাসীর সেচ্ছা শ্রম ও নিজস্ব অর্র্থায়নে এই বাধঁ ও রাস্তাটি নির্মাণ করা হবে।
গত ১১ ডিসেম্বর (শুক্রবার) উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এড.জামান আব্দুন নাছের বাবুল এ নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন।
প্রধান অতিথি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এড.জামান আব্দুন নাছের বাবুল বলেন- এই বাধঁটি নির্মান খুবই জরুরী বিধায় এলাকাবাসী স্বেচ্ছা শ্রম ও নিজস্ব অর্থায়নে বাঁধ ও রাস্তা নির্মাণ কাজ শুরু করেছে। বাধঁটি নির্মানে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে দ্রুতই আমরা অর্থ বরাদ্দের ব্যবস্থা করব। আমি এ দূর্গম চরাঞ্চলের মানুষের সুপ্ত প্রতিভা দেখে অত্যন্ত আনন্দিত ও গর্বিত যে, এলাকাবাসী মাথার ঘাম পায়ে ফেলে নিজ পরিশ্রমে ও নিজের জীবিকা নির্বাহের টাকা ব্যয় করে এই বাঁধ ও রাস্তাটি নির্মান কাজ হাতে নিয়েছেন। আমি মনে করি ইন্দুল্লামারী গ্রামবাসীর প্রতিভা টুকু যেন দেশের সকল অঞ্চলের মানুষের মাঝে ছড়িয়ে পড়ে। এ জন্য আমি ইন্দুল্লামারী এলাকাবাসীর কাছে কৃতজ্ঞ ও ধন্যবাদ জানাই। অচিরেই আমি এ বাঁধ ও রাস্তা নির্মানে সরকারী কিছু বরাদ্দের জন্য প্রয়োজনীয় সহযোগিতা ও ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- ৪নং সাপধরী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীন, ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি খলিলুর রহমান, উপজেলা শ্রমিক লীগের সাবেক সভাপতি জালাল হোসেন, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক মনিরুজ্জামান লাজু, সাংগঠনিক সম্পাদক আল আমিন, বিভিন্ন মিডিয়ার সাংবাদিকসহ এলাকার সুধীবৃন্দ।
এলাকাবাসী জানায়, দীর্ঘদিন থেকে ইন্দুল্লামারী খালটি ভেঙ্গে পড়ায় অনেক বসত বাড়ী ও ফসলি জমি নদী গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। নদী ভাঙন থেকে রক্ষা পেতে এই বাধঁ নির্মান করা জরুরী। বাঁধটি নির্মান করা হলে কয়েকটি গ্রামসহ হাজার হাজার একর ফসলি জমি রক্ষা পাবে।

এস.এম হোসেন রানা
ইসলামপুর,জামালপুর।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর ....

All rights reserved © 2020 shomoyerbangla.com
Design & Developed BY shomoyerbangla
x