1. raselahamed29@gmail.com : admin :
  2. uddinjalal030@gmail.com : jalaluddin :
  3. masudranameherpur9941@gmail.com : masudranameherpur :
  4. puloks25@gmail.com : puloks :
  5. rakibkst1996@gmail.com : rakibkst1996 :
  6. news.thekushtiareport24com@gmail.com : shomoyerbangla24 :
দৌলতপুরে অবৈধ বাংলালিংক ডিস কেবল নেটওয়ার্ক ৩বার ছিলগালা করলেও পুণরায় চালু প্রশাসন নীরব - Online TV
মঙ্গলবার, ০৯ মার্চ ২০২১, ০৩:৫৭ অপরাহ্ন

দৌলতপুরে অবৈধ বাংলালিংক ডিস কেবল নেটওয়ার্ক ৩বার ছিলগালা করলেও পুণরায় চালু প্রশাসন নীরব

Khandaker Jalal Uddin. Email: uddinjalal030@gmail.com
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৩০ বার নিউজটি পড়া হয়েছে

দৌলতপুর প্রতিনিধি : কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার অবৈধ বাংলালিংক ডিস কেবল নেটওয়ার্ক তিনবার ছিলগালা করলেও আইনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি প্রদর্শন করে রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের বাড়ীতে পুণরায় চালু করেছে জনৈক মোঃ মিন্নাত আলি পরিচালিত কন্ট্রোল রুমটি, এদিকে জেলা প্রশাসক লিখিত ভাবে উচ্ছেদের জন্য চিঠি প্রদান করলেও নানা অজুহাতে প্রশাসন নীরব।

জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে গত ৪ ফেব্র“য়ারী স্বরক নম্বর.০৫.৪৪.৫০০০.০০১.৩৩.০৩৩.২০.১৩২ এর চিঠিতে ০১.উপপরিচালক, স্থানীয় সরকার, কুষ্টিয়া। ০২.উপজেলা নির্বাহী অফিসার, দৌলতপুর, কুষ্টিয়া। ০৩.মোঃ সবুজ হাসান, বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিট্রেট, জেলা প্রশাসকের কার্যালয় কে অবগত করান হয়, মোঃ গিয়াস উদ্দীন, স্বার্তধিকারী, রামকৃষ্ণপুর কেবল নেটওয়ার্ক, দৌলতপু এর আবেদন।

মহামান্য হাইকোটের রিট পিটিশন নং ৩৫০৬/২০১৮ এর আদেশ। মহাপরিচালক, বিটিভি এর ১৮.১০.২০১৭ তারিখের ৩৬৪৩ নং পত্র। তথ্য মন্ত্রণালয় ০১.০৪.২০১৭ তারিখ ২৪৮ নং পত্র, এ কার্যালয়ের বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিট্রেট নিয়োগ সংক্রান্ত ১৬.১০.২০১৮ তারিখের ১০৪৯ নং পত্র, ২২.০১.২০১৯ তারিখের ৫৪ নং পত্র, ১৮.১০.২০২০ তারিখের ৭৬১ নং পত্র এবং ১০.০১.২১ তারিখের ৩৩নং পত্র। তাদের ডিস নেটওয়ার্কটি অবৈধ ভাবে পরিচালিত হচ্ছে নিশ্চিৎ হয়েছেন।

এ কারনে কণ্ট্রোলরুমটি ৩ বার বন্ধ করে দেওয়া হয়।

জেলা প্রশাসকের চিঠিতে বলা হয়েছে একজন নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি হিসেবে মোঃ সিরাজ মন্ডল, চেয়ারম্যান রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়ন, তার নিজ বাড়ীতে অবৈধ কেবল নেটওয়ার্কের কন্ট্রোলরুম স্বপনাসহ ব্যবসা পরিচালনা করা এবং অবৈধ ব্যবসায় নিজ পুত্রকে অংশিদার করা এবং অবৈধ ব্যবসায় চুক্তিপত্রে নিজে স্বাক্ষী হয়ে সরকারের নিয়োম নীতি-আইন ভঙ্গ করেছেন বিধায় এ বিষয়ে তার বিরুদ্ধে বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য উপপরিচালক, স্থানীয় সরকার, এবং উপজেলা নির্বাহী অফিসার, দৌলতপুর কে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের সদয় আদেশ প্রদান করেন।

কিন্ত প্রশাসন নীরব ভূমিকা পালন করায় এলাকাবাসী আতংকিত হয়ে পড়েছে। ইতি পূর্বে এ বিষয় নিয়ে রক্তক্ষয়ী সংর্ঘষ দেখা দিয়েছে, আবার তার কাটা, নেট ওয়ার্ক ভাগা ভাগী নিয়ে সংঘষের সম্ভাবনার আশংকা করছে এলাকার জনগণ।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জানান, উপপরিচালক প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিশ্চিৎ করে পাঠালে এবং নির্দেশনা পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর ....
All rights reserved © 2020 shomoyerbangla.com
Design & Developed BY shomoyerbangla
x