দৌলতপুর সিমান্তে ৫ বাংলাদেশীকে ধরে নিয়ে গেছে বিএসএফ ॥ পতাকা বৈঠকে স্বীকার

খন্দকার জালাল উদ্দীন,Email:uddinjalal030@gmail.com
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ১০ জুলাই, ২০২০
  • ৭৩ বার নিউজটি পড়া হয়েছে

দৌলতপুর প্রতিনিধি : কুষ্টিয়া দৌলতপুর উপজেলার মহম্মদপুর সিমান্ত থেকে ৫ বাংলাদেশীকে ধরে নিয়ে গেছে ভারতের সিমান্ত রক্ষী বাহিনী বিএসএফ, এ বিষয়ে পতাকা বৈঠকে স্বীকার করেছে বিএসএফ।
এলাকাবাসী ও বিজিবি সূত্রে জানাগেছে গত বুধবার ভোর ৬টার দিকে ৬ মহিষ নিয়ে বাংলাদেশের ১. মিঠুন (২৫) পিতা নাদের, গ্রাম- ঠোটারপাড়া, ২. লিটন (৩০), পিতা-রাজ্জাক, গ্রাম-বগমারী, ৩. আলমঙ্গীর (২৮), পিতা-আলীম ,গ্রাম-বগমারী, ৪. বাঘু (৪০), পিতা-উকিল, গ্রাম-চরপাড়া, ৫. আনন্দ (৪০), পিতা-জীবন সরকার এবং তাদের সাথে সিরাজ, আসিফ ও বিপ্লব সহ ভারতের আরো তিন জনসহ একাত্রে ভারত থেকে ৬ মহিষ নিয়ে বাংলাদেশের মহম্মদপুর সিমান্তের কাছে পোঁছে। এমন সময় ভারতের বাউস মারী ক্যাম্পের বিএসএফ তাদের ধাওয়া করে এবং উক্ত ৫ জনকে মহিষ সহ গ্রেফতার করে, অপর বাংলাদেশী ৩ জন পালিয়ে যায়।
এ বিষয়ে ১০ জুলাই শুক্রবার বেলা ১০টার দিকে ১৫৭ পিলারের কাছে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে ভারতের ১৩ সদস্যের পক্ষে নেতৃত্বদেন এসি বিমল দাস ও বাংলাদেশের ৮ সদস্যের পক্ষে নেতৃত্বদেন মহিষকুন্ডি কোম্পানী কোমান্ডার সুবেদার জাহাঙ্গীর আলম। বৈঠকে ভারতের বিএসএফ স্বীকার করে তারা চোরা কারবারী মিঠুন,লিটন,আলমঙ্গীর,বাঘু ও আনন্দ নামে ৫ জনকে গ্রেফতার করেছে এবং জলঙ্গী থানার মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর ....
x