দৌলতপুরে দুই বোনের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ

Khandaker Jalal Uddin. Email: uddinjalal030@gmail.com
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর, ২০২০
  • ৩৯ বার নিউজটি পড়া হয়েছে

 

দৌলতপুর প্রতিনিধি : কুষ্টিয়া দৌলতপুর উপজেলার আড়িয়া ইউনিয়নের কামারপাড়া গ্রামে ২৩ অক্টোবর শুক্রবার বেলা ১২ টার দিকে মোয়াজ্জেমের মেয়ে মুক্তা (১৫) ও মুনতাজের মেয়ে রুমা (২৫) নামে দুই বোনের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, কিছুদিন আগে একই এলাকায় একটি মেয়ে অপহরণ হয়, সেই মেয়েটি মুক্তার আপন মামাতো বোন। অপহরণ হওয়ার পর রাজীব নামে একটি ছেলেকে প্রধান আসামী, মুক্তা অপহরণ ও ধর্ষণ মামলার সহযোগী আসামী হিসেবে দৌলতপুর থানায় একটি মামলা হয়।

মামলা হওয়ার কারণে মুক্তা প্রায় দুই মাস পার্শ্ববর্তী উপজেলা মিরপুরে দুলাভাই খাদিমুল ইসলামের বাড়িতে আত্মগোপনে থাকে। সেখানে গিয়ে মুক্তা হয়তো আরেকটি ছেলের সাথে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। পরে মুক্তা আদালত থেকে জামিন নিয়ে নিজ বাড়িতে ফিরে আসে।

শুক্রবার সকালে মুক্তার চাচাতো বোন মুনতাজ সরদারের মেয়ে খাদিমুল এর স্ত্রী রুমা স্বামীর বাড়ি থেকে বাবার বাসায় বেড়াতে আসে। বেড়াতে এসে মুক্তার পরিবারের লোকজনের সাথে কথা কাটাকাটি হয়, এক পর্যায়ে মুক্তা গলায় রশি দিয়ে আত্মহত্যা করে। মুক্তার আত্মহত্যা করার আধা ঘন্টা পরে চাচাতো বোন রুমা গলায় রশি নিয়ে আত্মহত্যা করে।
এলাকাবাসী জানান এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় শোকের ছায়া বিরাজ করছে।

এ বিষয়ে দৌলতপুর থানা পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) শাহাদৎ হোসেন জানান মুক্তা ও রুমা’র লাশ উদ্ধার করেছে দৌলতপুর থানা, পুলিশ ময়না তদন্ত শেষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

এ জাতীয় আরো খবর ....
x